Select Page

জন্মের পর আড়াই বছর বয়স পর্যন্ত চোখে আলো ছিল। তারপর টাইফয়েড জ্বরে দুই চোখের আলো নিভে যায় রোজিনার।
রোজিনা রাজধানীর আগারগাঁও সরকারি সংগীত মহাবিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাস করেছেন। জন্ম থেকে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ফজলে রাব্বীকে বিয়ে করেছিলেন রোজিনা। স্বামীর সঙ্গে তিনি ঠাকুরগাঁওয়ে থাকতেন। গত বছরের মার্চে স্বামী হঠাৎই মারা যান। অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে ফারিহা জাহান এবং পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলে রাফিউন রাফিকে নিয়ে রোজিনা বিপাকে পড়েন। ঢাকায় থাকার সময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি করলেও ঠাকুরগাঁওয়ে রোজিনা গানের টিউশন করতেন। তবে ছেলেমেয়েদের পরীক্ষার আগে, রমজানের সময় এসব টিউশন বন্ধ রাখতে হয়। টিউশন সব সময় পাওয়া যায় না। স্বামী মারা যাওয়ার পর পরিস্থিতি আরও নাজুক হয়। সব মিলে খারাপ সময় পার করছিলেন রোজিনা।

পুরো সংবাদ

It’s Prothomalo.com News.